বার্তা ডেস্কঃ ফেনীতে মোবাইল ফোন বিস্ফোরণে লাইফ সাপোর্টে থাকা স্বপ্নীল মজুমদার (১৭) নামে এক কলেজছাত্রের মৃত্যু হয়েছে। রোববার (২ ডিসেম্বর) ভোর রাতে ঢাকা মেডিকেলের বার্ন ইউনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয় বলে জানান নিহতের নানা আবদুর রাজ্জাক।

নিহতের ছোট ভাই সজিব জানান, সড়ক দুর্ঘটনায় আহত বাবা সুমন মজুমদানকে নিতে ঢাকা আইডিয়াল কলেজের প্রথম বর্ষের ছাত্র স্বপ্নীল মজুমদার ফেনী শহর তলীর চাড়ীপুর এলাকার আমিন মিয়ার বাড়িতে আসেন। শনিবার বিকালে নানার বাড়ীর শয়ন কক্ষে একটি মোবাইল হ্যান্ডসেট চার্জ দিয়ে ঘুমাতে যায়। এসময় ঘরের লাইট বন্ধ করতে অন্য একটি সুইচ চাপ দিলে বিকট শব্দে মোবাইল ফোনটি বিস্ফোরিত হয়। এতে পুরো ঘরে আগুন ধরে আসবাবপত্র ও কাপড় চোপড়সহ সপ্নীল মজুমদারের শরীরের ৯০ ভাগ দগ্ধ হয়ে যায়।

পরে স্বজনরা তাকে উদ্ধার করে প্রথমে আধুনিক ফেনী সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজের বার্ন ইউনিটে প্রেরণ করেন। সেখানে চিকিৎসাধিন অবস্থায় তার মুত্যু হয়।

এদিকে ফেনী ফায়ার স্টেশনের ইনচার্জ কবির আহম্মদ জানান, আগুন লাগার তাৎক্ষণিক কোনো কারণ খুঁজে পাওয়া যায়নি। তবে তার ব্যবহৃত মোবাইল হ্যান্ডসেট ক্ষত বিক্ষত ছিল। প্রাথমিক ভাবে ধারণা করা হচ্ছে মোবাইল বিস্ফোরণেই স্বপ্নীল দগ্ধ হয় ।

এদিকে সোমবার সাড়ে ১১টায় নিজ বাড়ীর সামনে জানাযা শেষে আমিন বাড়ীর নানার পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হবে পারিবারিক সূত্র জানিয়েছে।