নোয়াখালীর বার্তা ডটকমঃ কথা আছে প্রেম মানে না কোনও ধর্ম, বর্ণ বা দেশ। সে কথা আবারও প্রমাণিত হলো। সুদূর ইতালি ছেড়ে বাংলাদেশি যুবকের প্রেমে পড়ে দেশ ছেড়েছেন ইতালিয় এক তরুণী।

গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে বাংলাদেশি তরুণ লক্ষ্মীপুরের রায়পুর উপজেলার মো. ইকবাল হোসেন (২৭) প্রেমের টানে ইতালি থেকে ছুটে এসেছেন এই তরুণী। ভালোবেসে বিয়েও করেছেন দু’জন। ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করে হয়েছেন খাদিজা আক্তার (১৯)। এ সংবাদ শুনে শুক্রবার সকাল থেকে তাদের দেখার জন্য দূর-দূরান্ত থেকে ছুটে আসছে বহু মানুষ।

ইকবাল উপজেলার সোনাপুর ইউনিয়নের পশ্চিম সোনাপুর গ্রামের ওসমান আলী পাটোয়ারী বাড়ীর আক্তার হোসেনের ছেলে।

ইকবাল জানান, প্রায় ৬ বছর আগে ইতালিতে চাকুরির সুবাদে খাদিজার সঙ্গে পরিচয় ও প্রেম হয় তাঁর। এরপর ইকবাল বাংলাদেশে চলে আসলেও ফোন ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের সাহায্যে ইকবালের সাথে নিয়মিত যোগাযোগ রক্ষা করে আসছিল ওই তরুণী।

ইকবাল আরও জানান, সম্পর্ক চলাকালীন সময়ে কাগজপত্রের কিছু সমস্যার কারণে তিনি ইতালিতে যেতে না পারলে গত বৃহস্পতিবার রাতে খাদিজা লক্ষ্মীপুরের রায়পুরে তাদের গ্রামের বাড়ীতে আসলে ইসলামী শরীয়ত মোতাবেক তাদের বিবাহ অনুষ্ঠিত হয়। ইকবাল বলেন, ভাষাগত কিছু সমস্যা থাকলেও বাঙালি নারীর মতোই স্বাভাবিকভাবে সব কাজ করছেন খাদিজা, পরছেন বাঙালি পোশাকও।

নববধূ খাদিজা জানান, বাংলাদেশর সংস্কৃতি ও পরিবেশ তার অনেক ভালো লেগেছে। একইসাথে ইকবালের প্রতি তার অগাধ ভালবাসার কথাও জানান। সেইসাথে তাদের জন্য সবার নিকট দোয়া প্রার্থনাও করেন।

এসময়, হানিমুনের জন্য কক্সবাজার ও মালয়েশিয়া যাবার কথাও জানান।

অন্যদিকে ছেলে-পুত্রবধূর জন্য দোয়া চাইলেন ইকবালের বাবা আক্তার হোসেন। তিনি বলেন, ছেলের বউ দেখে আমরা আনন্দিত। ছেলে-পুত্রবধূর উজ্জ্বল ভবিষ্যৎ কামনা করি।
সুত্রঃ যমুনা টেলিভিশন